money টাকা

অটোরিকশায় কুড়িয়ে পাওয়া পাঁচ লাখ টাকার ব্যাগ পেয়ে তা মালিককে ফিরিয়ে দিয়েছেন সারোয়ার জাহান নামের এক ব্যাংক কর্মকর্তা। সততার পরিচয় দেওয়া সারোয়ার জাহান ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেড (ইউসিবি) নারায়ণগঞ্জ শাখার জুনিয়র অফিসার। তিনি নারায়ণগঞ্জ শহরের পাইকপাড়া এলাকার আব্দুল কাদেরের ছেলে।

গতকাল সোমবার রাতে ফতুল্লা থানায় হারানো টাকার মালিক শাহিন শিকদারকে ডেকে ওই টাকা ফেরত দেওয়া হয়। তিনি মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী এলাকার বাসিন্দা। এ সময় ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) বারেকসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যা উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ব্যাংক কর্মকর্তা সারোয়ার জাহান বলেন, ‘গতকাল সোমবার বিকেলে অফিসের কাজ শেষ করে শ্যামপুরের ঢাকা ম্যাচ কারখানার সামনে থেকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে নারায়ণগঞ্জের উদ্দেশে রওয়ানা দেই। অটোরিকশাটিতে ওঠেই দেখি সিটের পাশে একটি ব্যাগ রাখা আছে। ব্যাগটি খুলতেই দেখি অনেকগুলো টাকা ও ছবিসহ পাসপোর্টের একটি ফটোকপি রয়েছে। সিএনজি চালকও বলতে পারেনি ব্যাগের মালিক কে। পরে প্রকৃত মালিকের কাছে টাকাগুলো পৌঁছে দিতে ব্যাগটি ফতুল্লা থানার ওসি মঞ্জুর কাদেরের কাছে হস্তান্তর করি।’

ফতুল্লা মডেল থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) বারেক জানান, যে সিএনজিচালিত অটোরিকশা থেকে টাকাগুলো পাওয়া যায় তার চালক সোহাগ মোল্লার বাড়ি মুন্সীগঞ্জ। টাকা হারানোর পর শাহীন শিকদার মুন্সীগঞ্জ সিএনজি স্টেশনে যোগাযোগ করলে সোহাগ মোল্লা তাকে ফতুল্লা নিয়ে আসেন। পরে পাসপোর্টের মূল কপি, জাতীয় পরিচয়পত্রসহ উপযুক্ত প্রমাণ দিলে তাকে টাকাসহ ব্যাগ ফেরত দেওয়া হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর কাদের বলেন, ব্যাংক কর্মকর্তা সারোয়ার জাহান একজন মহৎ মানুষ। যে কারণে তিনি টাকাগুলো ফেরত দিয়ে দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু টাকাগুলো অটোরিকশার মধ্যে পাওয়া গেছে সে কারণে সিএনজি চালক সোহাগ মোল্লা ও ব্যাংক কর্মকর্তা সারোয়ার জাহানের নাম উল্লেখ করে একটি জিডি করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here