ইয়ুথ নেক্সাস ও খুলনা আমেরিকান কর্নারের যৌথ উদ্যোগে সফট স্কিল বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি সফট স্কিল ডেভলপমেন্টই পারে একজন মানুষকে পূর্ণাঙ্গ শিক্ষিত হিসেবে গড়ে তুলতে । সেই লক্ষ্যে ২৬ জানুয়ারি আমেরিকান কর্নার, খুলনায় আয়োজন করা হয় সফ্ট স্কিল বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালার। দিনব্যাপী এই কর্মশালাটি যৌথভাবে আয়োজন করে ইয়ুথ নেক্সাস বাংলাদেশ ও আমেরিকান কর্নার খুলনা ।

সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয়ে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত চলা এ অনুষ্ঠানকে সাজানো হয় ৫ টি পর্বে। কর্নার কো-অর্ডিনেটর ফারজানা ইসলামের শুভেচ্ছা বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হয় আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম । প্রথম পর্বে খুলনা মেডিকেল কলেজের মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ ড.সৈয়দ মাহবুব কিবরিয়া মানসিক চাপ মোকাবেলা করে কিভাবে সাচ্ছন্দ্য চিত্তে কাজ করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা করে ।

এর পরপরই ভার্চুয়াল সেশনে যুক্ত হয় মাইন্ড মেকানিক্স একাডেমির নির্বাহী পরিচালক ইমরান খুরশীদ। ইমোশন ম্যানেজমেন্ট করে কিভাবে বস্তুনিষ্ঠতা ও বাস্তবিকতার ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া যায় তিনি এ বিষয়ে প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করে ।

দুপুরের বিরতির আগে সম্পন্ন হওয়া শেষ পর্বে প্রবলেম সলভিং (সমস্যা সমাধান) এর নানা কৌশল ও উপায় নিয়ে বিস্তারিত কথা বলে ইউএস স্টেট অ্যালামনাই জেসিকা অধরা । তিনি বলেন প্রবলেমকে আপনাদের দেখতে হবে পজেটিভ হিসাবে। কারন প্রবলেম বা সমস্যাগুলোকে সমাধান করার মাধ্যমেই শুধু আমরা সামনে এগিয়ে যেতে পারি।

দুপুরের খাবারের পর বেলা ২টা থেকে কর্মশালার ৪র্থ পর্ব শুরু হয়। এ পর্বে তরুনদের কমিউনিকেশন স্কিল ডেভলপমেন্টের উপর গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা মূলক প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করে ‘ ইয়ুথ নেক্সাস বাংলাদেশ ‘ এর নির্বাহী পরিচালক পলাশ মাহমুদ । তিনি বলেন একজন শিক্ষার্থী শুধু একাডেমিক দক্ষতার মাধ্যমে সফল হবেন বর্তমান যুগে এমনটা ভেবে নেয়াটা নিছক বোকামি। কারণ সফলতার জন্য প্রয়োজন বাড়তি কিছু সফ্ট স্কিল ।

যেমন, নিজেকে জানা ও বোঝা, আত্মনিয়ন্ত্রণ, ইচিবাচক চিন্তা, চিন্তার দক্ষতা, টেকনিক্যাল নলেজ ও টেকনোলজি বিষয়ক জ্ঞান, কমিউনিকেশন স্কিল , উপস্থাপন দক্ষতা, টাইম ম্যানেজমেন্ট, ব্যক্তি ও পারিবারিক জীবন ব্যবস্থাপনাসহ অন্যান্য কিছু বিষয়। তাই তরুনদের একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে প্রতিযোগিতা মূলক বিশ্ব টিকে থাকার জন্য তিনি প্রয়োজনীয় দক্ষতা অর্জনে মনোযোগী হওয়ার পরামর্শ দেন।

সর্বশেষে কর্মশালায় অংশগ্রহণকারীদের সনদ প্রদানের মাধ্যমে আয়োজনটি আনুষ্ঠানিকভাবে সমাপ্ত হয় ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here