Sayed Ashraful Islam is a Bangladeshi politician of the Awami League. He is a Member of Parliament and Minister of Public Administration of the Government of Bangladesh. Islam served for a time as Minister of Local Government and Rural Development.
আওয়ামী লীগ নেতা ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম

জাতীয় সংসদের কিশোরগঞ্জ-১ (কিশোরগঞ্জ সদর ও হোসেনপুর) আসনের পুনর্নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ভাই-বোন। সৈয়দ আশরাফের ছোট ভাই সৈয়দ সাফায়েত উল ইসলাম ও বোন সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি ইতিমধ্যে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দ আশরাফের মৃত্যুর কারণে এই আসনে আবার ভোট হচ্ছে। সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেওয়ার আগেই ৩ জানুয়ারি রাত ১০টার দিকে মারা যান সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। কিশোরগঞ্জ-১ আসনে পুনর্নির্বাচন হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রির প্রথম দিন গত বুধবার প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ছোট ভাই সৈয়দ সাফায়েত উল ইসলাম মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। তাঁর পক্ষে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন তোফাজ্জল হোসেন। মনোনয়ন ফরম বিক্রির শেষ দিনে আজ শুক্রবার সকালে সৈয়দ আশরাফের বোন সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি মনোনয়ন সংগ্রহ করেন। সৈয়দা জাকিয়া নূরের মামাতো বোন আনা মিলকী তাঁর পক্ষে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।

আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কিশোরগঞ্জ-১ আসনে পুনর্নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম আজ শুক্রবার পর্যন্ত বিক্রি করা হবে।

কিশোরগঞ্জে-১ আসনের পুনর্নির্বাচনে প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ভাই-বোন ছাড়াও কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ আজিজুল হক, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের মেজ ছেলে রাসেল আহমেদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহপাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক এম এ হান্নান এবং কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মসিউর রহমান দলের মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন।

আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ১৯৯৬ সাল থেকে কিশোরগঞ্জ-১ আসনে টানা পাঁচবার নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হন। গত বছরের জুলাই মাসে ফুসফুসে ক্যানসারের কারণে তাঁকে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হন তিনি।

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ৩১ জানুয়ারি, মনোনয়নপত্র বাছাই ৩ ফেব্রুয়ারি এবং প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here