St. Martin's Island is a small island in the northeastern part of the Bay of Bengal, about 9 km south of the tip of the Cox's Bazar-Teknaf peninsula, and forming the southernmost part of Bangladesh. There is a small adjoining island that is separated at high tide, called Chera Dwip.
বঙ্গোপসাগরের সর্ব দক্ষিণে অবস্থিত সেন্ট মার্টিন দ্বীপ। ছবি: সংগৃহীত

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে আগামী ২৮ থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত চার দিন প্রবাল দ্বীপ সেন্ট মার্টিনস পর্যটকদের ভ্রমণ বন্ধ থাকবে। নির্বাচনে নিরাপত্তাজনিত কারণে গতকাল শনিবার এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রবিউল হাসান কালের কণ্ঠকে বলেন- ‘নির্বাচনের সময় দেশি-বিদেশি পর্যটকদের নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে চারদিন সেন্ট মার্টিনস ভ্রমণ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে আমাকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে।’

তিনি বলেন, ২৮ থেকে ৩১ ডিসেম্বর চারদিন টেকনাফ থেকে সেন্ট মার্টিনসগামী পর্যটকবাহী কোনো জাহাজ ছাড়বে না। এ কারণে ওই চার দিন দেশি-বিদেশি পর্যটকরা সেন্ট মার্টিনস ভ্রমণে যেতে পারবে না।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) টেকনাফ অঞ্চলের পরির্দশক (পরিবহন) মোহাম্মদ হোসেন বলেন, ‘নির্বাচনকে সামনে রেখে চার দিনের জন্য টেকনাফ-সেন্ট মার্টিনস নৌরুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ রাখা হবে। তবে নির্বাচন পরবর্তী পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরলে পুনরায় এ রুটে জাহাজ চলাচল শুরু হবে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে টেকনাফ-সেন্ট মার্টিনস নৌরুটে ছয়টি জাহাজ চলাচল করছে। সেগুলো হচ্ছে- কেয়ারি সিন্দাবাদ, কেয়ারি ক্রুজ অ্যান্ড ডাইন, বে-ক্রুস, এলসিটি কাজল, এমভি ফারহান ও গ্রীণ লাইন।’

উল্লেখ্য, পর্যটন জেলা কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফ উপজেলা নিয়ে কক্সবাজার-৪ আসনটি গঠিত। কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের দুই উপজেলায় একটি পৌরসভা ও এগারটি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৬৬ হাজার ১৪৬ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩৪ হাজার ১৪৫ জন এবং নারী ভোটার ১ লাখ ৩২ হাজার একজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here