miss world Bangladesh 2018
মিস ওয়ার্ল্ডের অন্য প্রতিযোগীদের সঙ্গে ঐশী (বাম থেকে চতুর্থ)

কয়েক মাস আগেও সাদামাটা জীবনযাপন ছিল জান্নাতুল ফেরদৌসী ঐশীর। উচ্চমাধ্যমিক পাস শেষে যখন ঢাকায় এলেন, তখনো ছিল তাঁর সাধারণ জীবন। আর দশজন মেয়ের মতো চলাফেরা ছিল তাঁর। পড়তে হয়নি কোনো বিড়ম্বনায়। যেই না ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হলেন, তখন থেকে নতুন এক জীবনে ঢুকে যান ঐশী। রাতারাতি বদলে যাওয়া ঐশীকে নিয়ে নাকি ফেসবুকসহ মোবাইল প্ল্যাটফর্ম মবস্টারে খোলা হয় অনেকগুলো ভুয়া আইডি। এসব ভুয়া আইডি চীনের সানাইয়া শহরে মিস ওয়ার্ল্ডের মঞ্চে থাকা ঐশীকে বিব্রত করছে। গতকাল সোমবার ফেসবুকে ভিডিও বার্তায় এসব কথা জানান তিনি।

বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে ১০ নভেম্বর চীনের উদ্দেশে বাংলাদেশ ছেড়েছেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ ঐশী। এখন তিনি চীনের সানাইয়া শহরে আছেন। বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতার ৬৮তম আসরে ১৫০টি দেশের প্রতিযোগীর সঙ্গে সেরার লড়াইয়ে আছেন ঐশী। আগামী ৮ ডিসেম্বর মিস ওয়ার্ল্ডের গ্র্যান্ড ফিনালে। এর আগে বিশ্বের অন্যান্য দেশের প্রতিযোগীদের সঙ্গে বিভিন্ন সেগমেন্টে অংশ নিতে হবে তাঁকে। সব কটি ধাপ সাফল্যের সঙ্গে পার হলে তবেই গ্র্যান্ড ফিনালেতে দেখা যাবে বাংলাদেশের ঐশীকে।

miss world Bangladesh 2018
জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৮

বিশ্বব্যাপী প্রতিভাবানদের সঙ্গে ভক্তদের সেতুবন্ধ তৈরি করে মোবাইল প্ল্যাটফর্ম মবস্টার। এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে প্রতিযোগীরা ১৫ সেকেন্ডের ভিডিও আপলোড করতে পারেন, ভক্তদের কাছে ভোট চাইতে পারেন। কিন্তু কে বা কারা নাকি মবস্টারে ঐশীর নামে অনেকগুলো আইডি খুলেছেন। বিষয়টি নিয়ে মিস ওয়ার্ল্ডে অন্য দেশের কয়েকজন প্রতিযোগীর সামনে বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়েছে তাঁকে। ভিডিও বার্তায় ঐশী বলেন, ‘মবস্টারে আমার নামে অনেকগুলো ফেক আইডি আছে। এগুলো নিয়ে আমাকে বিব্রতকর অবস্থাতে পড়তে হচ্ছে। দয়া করে আপনারা আমার নামের ফেক আইডিগুলো বন্ধ করে দিন।’

ঐশী আরও বলেন, ‘আমার নামে যাঁরা ফেক অ্যাকাউন্ট খুলছেন, কী লাভ আপনাদের! আপনাদের অতি উৎসাহে কিন্তু আমার অনেক ক্ষতি হচ্ছে। আমার অনেক কমেন্ট লাইক শেয়ার অন্য আইডিতে চলে যাচ্ছে। বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতায় এসেছি আমি, এখন আপনাদের অনেক সাপোর্ট দরকার। লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার গুরুত্বপূর্ণ আমার জন্য। আমি এখানে দেশের প্রতিনিধি হয়ে এসেছি। নিজের দেশের মানুষ যদি আমার ক্ষতি করেন, তাহলে কীভাবে সামনে দিকে এগিয়ে যাব! আপনারা যাঁরা আমার নামে ফেক অ্যাকাউন্ট খুলেছেন, তাঁদের কাছে অনুরোধ, এগুলো বন্ধ করে দেন।’

ঐশী

পিরোজপুরের মাটিভাঙ্গা এলাকার মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌসী ঐশী। এইচএসসি পাস করেছেন মাথাভাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ থেকে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে এসেছিলেন ঢাকায়। ভর্তি কোচিং করার সময়ই দেখেন ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার বিজ্ঞাপন। নাম লেখান প্রতিযোগিতায়। নানা ধাপ পেরিয়ে ৩০ সেপ্টেম্বরের গ্র্যান্ড ফিনালেতে চ্যাম্পিয়ন হন তিনি। ঢাকার বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারের রাজদর্শন মিলনায়তনে বসেছিল ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮ ’-এর গ্র্যান্ড ফিনালে। সেখানে ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের গ্র্যান্ড ফিনালেতে সেরা ১০ সুন্দরীর মধ্য থেকে ঐশীকে সেরা হিসেবে নির্বাচিত করা হয়।

Real Id Please help me

Posted by Jannatul Ferdous Oishi on Monday, November 19, 2018

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here